logo

পুরুষদের বাসায় সালাত আদায় করার ভয়াবতা

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক
পবিত্রতা ও সালাত
২ সপ্তাহ আগে
৯৩

প্রশ্ন : পুরুষদের জন্য বাসায় সালাত আদায় আর মসজিদে সালাত আদায় করার মধ্যে পার্থক্য কী?

উত্তর : ইসলামে মসজিদে গিয়ে জামাতের সঙ্গে সালাত আদায় করার গুরুত্ব অপরিসীম। পুরুষদের জন্য মসজিদে গিয়ে জামাতে সালাত আদায় করা অপরিহার্য, বিনা ওজরে ঘরে সালাত আদায় করার সুযোগ নেই। রাসুল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মসজিদে উপস্থিত হয়ে জামাতের সঙ্গে সালাত আদায় করার ওপর জোরালো তাগিদ করেছেন। এমনকি অন্ধ ব্যক্তিকে পর্যন্ত জামাত পরিহার করে ঘরে সালাত আদায় করার অবকাশ দেননি।

আবদুল্লাহ ইবনে উম্মে মাকতুম রা. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বললাম, আমি একজন বৃদ্ধ ও অন্ধ মানুষ, আমার বাড়িও (মসজিদ থেকে) দূরে এবং আমাকে সাহায্য করার মতো কোন রাহবারও নেই। সুতরাং আপনি কি (আমাকে জামাআতে উপস্থিত না হওয়ার) অবকাশ দেবেন? তিনি বলেন, তুমি কি আযান শুনতে পাও? আমি বললাম, হ্যাঁ। তিনি বলেন, আমি তোমার জন্য কোনো অবকাশ পাচ্ছি না।

 [সুনানে আবু দাউদ, ৫৫২; সুনানে ইবনে মাজাহ, ৭৯২]

জামাতের ফজিলত প্রসঙ্গে রাসুল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন,

صَلَاةُ الْجَمَاعَةِ تَفْضُلُ صَلَاةَ الْفَذِّ بِسَبْعٍ وَعِشْرِيْنَ دَرَجَةً.

অর্থ : জামাতে আদায়কৃত সালাতের ফযিলত একাকী আদায়কৃত সালাত অপেক্ষা সাতাশ গুণ বেশি।

[সহিহ বুখারি, ৬৪৫]

 

জামাত পরিহার করার ব্যাপারে সতর্কবার্তা উচ্চারণ করে বলেন,

لَقَدْ هَمَمْتُ أَنْ آمُرَ بِالصَّلاةِ فَتُقَامَ ثُمَّ آمُرَ رَجُلاً فَيُصَلِّي بِالنَّاسِ ثُمَّ أَنْطَلِقَ مَعِي بِرِجَالٍ مَعَهُمْ حُزَمٌ مِنْ حَطَبٍ إِلَى قَوْمٍ لَا يَشْهَدُونَ الصَّلَاةَ فَأُحَرِّقَ عَلَيْهِمْ بُيُوتَهُمْ بالنَّارِ .

অর্থ : আমার ইচ্ছা হয় যে, সালাত কায়েম করার আদেশ দিয়ে কাউকে ইমামতি করতে বলি। আর আমি কিছু লোককে নিয়ে জ্বালানী কাঠের বোঝাসহ যারা সলাতের জামাআতে আসে না তাদের কাছে যাই এবং আগুন দিয়ে তাদেরকে সহ তাদের ঘরবাড়ী জালিয়ে দিই।

[সহিহ মুসলিম, ১৩৬৮]

এ হাদিস নির্দেশ করে যে, বিনা ওজরে জামাত ছেড়ে দেওয়া এত বড় অপরাধ যে, এর ফলে ব্যক্তি আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার মতো শাস্তির উপযুক্ত হয়ে যায়। যদি এ শাস্তি কার্যকরের অনুমোদন কাউকে দেওয়া হয়নি। অপরাধের মাত্রা বুঝানো হয়েছে মাত্র।

আরেক হাদিসে রাসুল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন,

مَنْ سَمِعَ النَّدَاءَ فَلَمْ يَأْتِهِ فَلَا صَلَاةَ لَهُ إِلَّا مِنْ عُدْرٍ.

অর্থ : যে ব্যাক্তি আযান শুনল এবং কোনো ওজর না থাকা সত্ত্বেও (মসজিদে) উপস্থিত হলো না, তার সালাত হয় না। (অর্থাৎ, তার সালাত পূর্ণাঙ্গ হয় না, বরং অসম্পূর্ণ থেকে যায়।)

 [সুনানে ইবনে মাজাহ, ৭৯৩]

 

আলি ইবনে আবু তালেব রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন,

لَا صَلَاةَ لِجَارِ الْمَسْجِدِ إِلَّا فِيْ الْمَسْجِدِ.

অর্থাৎ, মসজিদের প্রতিবেশীর নামাজ একমাত্র মসজিদেই হবে।

[মুসান্নাফে ইবনে আবু শাইবা, ৩৪৬৯]

আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ রা. বলেন,

مَنْ سَرَّهُ أَنْ يَلْقَى اللَّهَ غَدًا مُسْلِمًا فَلْيُحَافِظُ عَلَى هَؤُلاءِ الصَّلَوَاتِ حَيْثُ يُنَادَى بِهِنَّ فَإِنَّ اللَّهَ شَرَعَ لِنَبِيِّكُمْ صلى الله عليه وسلم سُنَنَ الْهُدَى وَإِنَّهُنَّ مِنْ سُنَنِ الْهُدَى وَلَوْ أَنَّكُمْ صَلَّيْتُمْ فِي بُيُوتِكُمْ كَمَا يُصَلِّي هَذَا الْمُتَخَلَّفُ فِي بَيْتِهِ لَتَرَكْتُمْ سُنَّةَ نَبِيِّكُمْ وَلَوْ تَرَكْتُمْ سُنَّةَ نَبِيِّكُمْ لَضَلَلْتُمْ. وَلَقَدْ رَأَيْتُنَا وَمَا يَتَخَلَّفُ عَنْهَا إِلَّا مُنَافِقُ مَعْلُومُ النَّفَاقِ وَلَقَدْ كَانَ الرَّجُلُ يُؤْتَى بِهِ يُهَادَى بَيْنَ الرَّجُلَيْنِ حَتَّى يُقَامَ فِي الصَّفِّ .

অর্থ : যে ব্যক্তি কাল কেয়ামতের দিন মুসলিম হিসেবে আল্লাহর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে আনন্দবোধ করে, সে যেন ওই স্থানে সালাত আদায় করার প্রতি যত্নবান হয়, যেখানে সালাতের আযান দেওয়া হয় (অর্থাৎ মসজিদে সালাত আদায় করে)। কেননা আল্লাহ তোমাদের নবীর জন্য হেদায়েতের পন্থাসমূহ বিধিবদ্ধ করেছেন। এসব সালাতও সে সকল পন্থাসমূহের অন্তর্ভুক্ত। যদি তোমরা (মসজিদ ছেড়ে) ঘরে সালাত আদায় করো, যেমন এ সকল মসজিদ পরিত্যাগকারী মানুষ ঘরে সালাত আদায় করে থাকে, তবে তোমরা তোমাদের নবীর সুন্নাহ ছেড়ে দেবে। আর তোমরা তোমাদের নবীর সুন্নাহ ছেড়ে দিলে পথভ্রষ্ট হয়ে যাবে। আমরা সর্বজনবিদিত মুনাফিক ছাড়া আর কাউকে জামাতের সালাত পরিহার করতে দেখতাম না। (রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের যুগে) মানুষ দুজনের কাঁধে ভর দিয়ে (মসজিদে) আসত এবং তাকে কাতারে দাঁড় করিয়ে দেওয়া হতো।

[সহিহ মুসলিম, ১৩৬৩]

 

এ সব হাদিসের আলোকে ফকিহগণ বলেছেন, পুরুষদের জন্য মসজিদে গিয়ে জামাতে সালাত আদায় করা সুন্নাতে মুআক্কাদা। বরং অনেক ফকিহের মতে ওয়াজিব। বিনা ওজরে ঘরে সালাত আদায় করার অবকাশ নেই। যে পুরুষ জামাতের সঙ্গে সালাত আদায় করে, তার সালাত আল্লাহর সন্তুষ্টির সাথে পূর্ণাঙ্গরূপে আদায় হয় এবং সে আল্লাহর নিকট সওয়াবের উপযুক্ত হয়। পক্ষান্তরে যে বিনা ওজরে ঘরে সালাত আদায় করে, তার সালাত যদিও আদায় হয়ে যায়, কিন্তু তা আদায় হয় আল্লাহর অসন্তুষ্টির সঙ্গে। সে গুনাহগার হয়, সওয়াব থেকে বঞ্চিত হয় এবং কঠিন শাস্তিরও উপযুক্ত হয়।

সূত্র : সহিহ বুখারি, ৬৪৫; সহিহ মুসলিম, ১৩৬৩, ১৩৬৮; সুনানু আবি দাউদ, ৫৫২; সুনানু ইবনি মাজাহ, ৭৯২, ৭৯৩; ৪/১৯১; মুসান্নাফে ইবনে আবি শাইবা, ৩৪৬৯; শারহু মুশকিলিল আসার, ১/৩৯৪; ফাতহুল কাদির, ১/৩৪৭; মাজমুউ ফাতাওয়া ইবনি বায, ১২/১৮

একই প্রশ্ন আপনার বন্ধু-প্রিয়জনদের থাকতে পারে,
আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে উত্তরটি শেয়ার করে আপনিও সদকায়ে জারিয়ায় অংশ নিন

বিভাগসমূহ

ঈমান ও আকায়েদ

১২০ টি প্রশ্ন আছে

কুরআনুল কারীম

৬০ টি প্রশ্ন আছে

হাদীস ও সুন্নাহ

১২১ টি প্রশ্ন আছে

পবিত্রতা ও সালাত

২০২ টি প্রশ্ন আছে

যাকাত ও সাদাকাহ

২১ টি প্রশ্ন আছে

সিয়াম/রামাদান

৭৯ টি প্রশ্ন আছে

হাজ্জ ও উমরাহ

২৭ টি প্রশ্ন আছে

কুরবানী ও আকীকা

৫৬ টি প্রশ্ন আছে

ব্যবসা-বাণিজ্য ও লেনদেন

৪৭ টি প্রশ্ন আছে

আখলাক ও ইসলামী শিষ্টাচার

১২৮ টি প্রশ্ন আছে

হালাল-হারাম

১৭৬ টি প্রশ্ন আছে

বিবাহ ও তালাক

৭৬ টি প্রশ্ন আছে

ফেসবুক পাতা

নিয়মিত ইসলামিক তথ্য পেতে আমাদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে সংযুক্ত থাকুন