logo

মেইন লাইন থেকে বিদ্যুৎ নিয়ে ব্যাডমিন্টন খেলার বিধান

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক
হালাল-হারাম
২ মাস আগে
৮৪

উত্তর : বিদ্যুৎ জাতীয় সম্পদ। মেইন লাইন থেকে বিদ্যুৎ নেওয়া বিদ্যুৎ চুরি করার শামিল। আর ব্যক্তিগত সম্পদের মতো জাতীয় সম্পদ চুরি করাও হারাম। বরং জাতীয় সম্পদ চুরি করা ব্যক্তিগত সম্পদ চুরি করার চেয়ে বেশি জঘণ্য। কারণ, ব্যক্তিগত সম্পদের মালিক ব্যক্তি হলেও জাতীয় সম্পদের মালিক দেশের কোটি কোটি মানুষ। একজনের সম্পদ অন্যায়ভাবে ভোগ করার তুলনায় কোটি কোটি মানুষের হক নষ্ট করা অনেক বেশি জঘন্য। এ ব্যাপারে ভয়াবহ সতর্কবার্তা উচ্চারিত হয়েছে। আল্লাহ তাআলা বলেন,

وَ مَنۡ یَّغۡلُلۡ یَاۡتِ بِمَا غَلَّ یَوۡمَ الۡقِیٰمَۃِ ۚ ثُمَّ تُوَفّٰی کُلُّ نَفۡسٍ مَّا کَسَبَتۡ وَ هُمۡ لَا یُظۡلَمُوۡنَ

অর্থ : যে ব্যক্তি অন্যায়ভাবে কোনো সম্পদ গ্রহণ করবে, সে কেয়ামতের দিন ওই বস্তু নিয়ে উঠবে, যা সে অন্যায়ভাবে হস্তগত করেছিল। অতঃপর প্রত্যেককে তার কৃতকর্মের পুরোপুরি প্রতিদান দেওয়া হবে এবং কারও প্রতি জুলুম করা হবে না।

 [সুরা আলে ইমরান : ১৬১]

আল্লাহর রাসুল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন,

إنَّ رِجَالًا يَتَخَوَّضُونَ في مَالِ اللَّهِ بغيرِ حَقٍّ، فَلَهُمُ النَّارُ يَومَ الْقِيَامَةِ.

অর্থ : নিশ্চয়ই কিছু মানুষ আল্লাহর সম্পদে (রাষ্ট্রীয় সম্পদে) অন্যায়ভাবে হস্তক্ষেপ করে। তাদের জন্য কেয়ামতের দিন রয়েছে জাহান্নাম।

[সহিহ বুখারি : ৩১১৮]

এজন্য ব্যাডমিন্টন খেলতে অনুমতি সাপেক্ষে ব্যক্তিবিশেষের লাইন থেকে বিদ্যুৎ নেওয়া যেতে পারে। কিন্তু মেইন লাইন থেকে বিদ্যুত নেওয়া জায়েজ হবে না। কেউ যদি মেইন লাইন থেকে বিদ্যুত নিয়ে থাকে, তবে উচিত তওবা করা এবং ব্যবহৃত বিদ্যুতের মূল্য কর্তৃপক্ষের কোষাগারে পৌঁছে দেওয়া।

নবী কারিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন,

عَلَى الْيَدِ مَا أَخَذَتْ حَتَّى تُؤدِّيَهُ.

অর্থ : কেউ কোনো কিছু নিলে ফেরত দেওয়া পর্যন্ত তা তার ঘাড়ে থেকে যাবে। [সুনানু আবি দাউদ, ১২৬৬]

অতএব, মেইন লাইন থেকে বিদ্যুৎ ব্যবহার করলে তার মূল্য সরকারি কোষাগারে পৌঁছে দিতে হবে। ব্যবহৃত বিদ্যুতের মূল্য কর্তৃপক্ষের কোষাগারে পৌঁছে দেওয়া ছাড়া দায়মুক্ত হওয়া যাবে না। এমনকি এ ক্ষেত্রে কোনো কর্মকর্তার মৌখিক অনুমতিও যথেষ্ঠ নয়। কারণ কাউকে বিনা মূল্যে বিদ্যুৎ দেওয়ার এখতিয়ার তার নেই।

সূত্র : সহিহ বুখারি, ৩০৭৪; সুনানুত তিরমিযি, ১৩৩৫; তাফসিরে কুরতুবি, ৪/১৬৭; মাজমাউল আনহুর, ২/৪৫৬; মাজাল্লাতুল আহকামিল আদলিয়্যা, পৃ. ১৭২

 

একই প্রশ্ন আপনার বন্ধু-প্রিয়জনদের থাকতে পারে,
আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে উত্তরটি শেয়ার করে আপনিও সদকায়ে জারিয়ায় অংশ নিন

বিভাগসমূহ

ঈমান ও আকায়েদ

১২০ টি প্রশ্ন আছে

কুরআনুল কারীম

৬০ টি প্রশ্ন আছে

হাদীস ও সুন্নাহ

১২১ টি প্রশ্ন আছে

পবিত্রতা ও সালাত

২০২ টি প্রশ্ন আছে

যাকাত ও সাদাকাহ

২১ টি প্রশ্ন আছে

সিয়াম/রামাদান

৭৯ টি প্রশ্ন আছে

হাজ্জ ও উমরাহ

২৭ টি প্রশ্ন আছে

কুরবানী ও আকীকা

৫৬ টি প্রশ্ন আছে

ব্যবসা-বাণিজ্য ও লেনদেন

৪৭ টি প্রশ্ন আছে

আখলাক ও ইসলামী শিষ্টাচার

১২৮ টি প্রশ্ন আছে

হালাল-হারাম

১৭৭ টি প্রশ্ন আছে

বিবাহ ও তালাক

৭৬ টি প্রশ্ন আছে

ফেসবুক পাতা

নিয়মিত ইসলামিক তথ্য পেতে আমাদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে সংযুক্ত থাকুন